1. masud.shah@gmail.com : admin :
  2. news.bholacrime@gmail.com : News Editor : News Editor
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভোলার লালমোহনে চাচার ষড়যন্ত্রমুলক মিথ্যা মামলার স্বীকার ভাতিজা হোসেন মিজান মোল্লা ভোলায় নানা আয়োজনে “দৈনিক আমাদের সংগ্রাম”এর ১ম বর্ষপূর্তি পালন মনপুরা প্রেসক্লাবের সাথে ভোলার বাণী’র সম্পাদকের মতবিনিময় সাংবাদিক হয়রানীতে অষ্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট এর নিন্দা তোফায়েল আহমেদের শারিরীক অবস্থা এখন অনেকটাই শংকামুক্ত “নেতা কর্মীদের তৈরি বলয়েই”সেদিন বেঁচে ফিরেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা আগামী নভেম্বর এবং ডিসেম্বরে নেয়ার প্রস্তুতি বয়স ২৫ হলেই গ্রহন করা যাবে করোনার টিকা মাদকের নিউজ করায় সন্ত্রাসী হামলার স্বীকার সাংবাদিক বেল্লাল নাফিজ লকডাউন নিয়ে গুজবে কান না দেওয়ার পরামর্শ জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীর

বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটিতে ৩০০ মিলিয়ন বিনিয়োগ করবে ওরিক্স

নিউজ এডিটর
  • সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত আইসিটি টাওয়ারে এক অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। এ লক্ষ্যে হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ, সামিট গ্রুপ এবং ওরিক্স বায়ো-টেক লিমিটেডের মধ্যে এক ত্রি-পক্ষীয় চুক্তি সই হয়। এর আওতায় ওরিক্স বায়ো-টেক লিমিটেডকে ব্লক-২ এ ২৫ একর জমি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে এই চুক্তি সইয়ের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে ৩০০ মিলিয়ন ডলারের বৈদেশিক বিনিয়োগ এবং প্রায় দুই হাজার জনের উচ্চ বেতনের কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ দেশ বায়ো-প্রযুক্তিতে অনেক দূর এগিয়ে যাবে বলে আশাবাদ সংশ্লিষ্টদের।

মূলত হিউম্যান প্লাজমা থেকে বায়ো-টেক পণ্য উৎপাদিত হয়। এইচআইভি এইডস এবং ক্যানসার রোগের চিকিৎসায় এসব বায়ো-টেক ওষুধ এখন ব্যবহৃত হচ্ছে। ওরিক্স বায়ো-টেক লিমিটেড বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটিতে বছরে ১২০০ টন প্লাজমা বিশ্লেষণে সক্ষম প্ল্যান্ট নির্মাণ করতে আগ্রহী। এর সঙ্গে ২০টি প্লাজমা সংগ্রহ স্টেশন সংযুক্ত থাকবে। প্রতিষ্ঠানটি এক্ষেত্রে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ অন্যান্য উন্নত বিশ্বের মান বজায় রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের বাজারে বায়ো-টেক পণ্য সহজলভ্য হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, কালিয়াকৈরে অবস্থিত ‘বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটি’ দেশের প্রথম ও বৃহত্তম হাই-টেক পার্ক। ২০১৪ সালে আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ সরেজমিনে এই পার্কটি পরিদর্শন করে পার্কের উন্নয়নে বিভিন্ন কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। ৩৫৫ একর জমিতে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটিতে এখন ৩৭টি কোম্পানিকে জায়গা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে সেখানে ৫টি কোম্পানি উৎপাদন শুরু করেছে। কোম্পানিগুলো এই পার্কে মোবাইল ফোন এসেম্বলিং ও উৎপাদন, অপটিকাল কেবল, হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, ডাটা-সেন্টার প্রভৃতি উচ্চ প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করবে। ইতোমধ্যে ৩২৭ কোটি টাকা বিনিয়োগ হয়েছে এবং প্রায় ১৩ হাজার জনের কর্মসংস্থান হয়েছে। আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে হাই-টেক পার্কগুলোতে ২৪শ কোটি টাকা বিনিয়োগ হবে বলে আমরা আশাবাদী।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

 

© All rights reserved © 2020