1. masud.shah@gmail.com : admin :
  2. news.bholacrime@gmail.com : News Editor : News Editor
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভোলায় নানা আয়োজনে “দৈনিক আমাদের সংগ্রাম”এর ১ম বর্ষপূর্তি পালন মনপুরা প্রেসক্লাবের সাথে ভোলার বাণী’র সম্পাদকের মতবিনিময় সাংবাদিক হয়রানীতে অষ্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট এর নিন্দা তোফায়েল আহমেদের শারিরীক অবস্থা এখন অনেকটাই শংকামুক্ত “নেতা কর্মীদের তৈরি বলয়েই”সেদিন বেঁচে ফিরেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা আগামী নভেম্বর এবং ডিসেম্বরে নেয়ার প্রস্তুতি বয়স ২৫ হলেই গ্রহন করা যাবে করোনার টিকা মাদকের নিউজ করায় সন্ত্রাসী হামলার স্বীকার সাংবাদিক বেল্লাল নাফিজ লকডাউন নিয়ে গুজবে কান না দেওয়ার পরামর্শ জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীর লালমোহন ভূমি কমিশনার জনাব জাহিদুল ইসলামের মোবাইল কোর্ট পরিচালনা

ভোলা পৌর নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সমর্থকদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, নৌকার নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর

নিউজ এডিটর
  • মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

২৮ শে ফেব্রুয়ারি ২০২১ ইং ভোলা সদরে আসন্ন পৌর নির্বাচন নিয়ে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং নৌকা সমর্থিত প্রার্থীর অফিস ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় নারী ও পুরুষ ভোটার সহ আহত হয়েছেন ১৫ জন।
মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল সোয়া ১০ টার সময় ভোলা সদর পৌর ৪নং ওয়ার্ড পুলিশ লাইন্স সংলগ্ন এলাকায় উট পাখির সমর্থিত প্রার্থী আসাদ হোসেন জুম্মানের সমর্থকদের নির্বাচনী গণসংযোগে অতর্কিত হামলা করে অপর কাউন্সিলর ডালিম মার্কার প্রার্থী শওকত হোসেন ও তার সমর্থকরা। ডালিমের সমর্থকরা উট পাখির সমর্থকদের ধাওয়া করে তাদের ব্র্যাক অফিস সংলগ্ন নৌকার নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করে।

এ সময় অফিসে থাকা নারী ভোটারদের লাঞ্ছিত করা হয়। ভাঙচুর করা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি। এই ঘটনায় আসাদ হোসেন জুম্মানের সমর্থকরা একত্রিত হয়ে ডালিম সমর্থিত প্রার্থীদের ধাওয়া দিলে ডালিম সমর্থিত লোকজন ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলটি পুলিশ নিয়ন্ত্রণ আনে।ডালিম সমর্থিত প্রার্থীর সমর্থকরা ২০ থেকে ২৫টি হাত বোমা চার্জ করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এই ঘটনায় উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হয়। আহতরা ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঘটনায় পৌর ৪নং ওয়ার্ডে সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।প্রত্যক্ষদর্শী, মো. ফারুক (৫০) বশির আহাম্মেদ (৪৫) মো. সাহে আলম (৩৫) মোসাম্মদ সুফিয়া খাতুন (৫০) ও হাজেরা বেগম (৬০) জানান, কোন কারন ছাড়াই কাউন্সিলর প্রার্থী শওকাত ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা চালিয়েছে।

এতে আমরাও আহত হয়েছি। এ ঘটনায় সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা রয়েছে।জানা যায়, ডালিম কাউন্সিলর প্রার্থী শওকাত হোসেনের স্থানীয় জনসমর্থক কম থাকায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বহিরাগত চিহ্নিত সন্ত্রাসী একত্রিত করে ভোট বানচালের জন্য সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ও তাদেরকে রাতের অন্ধকারে বাড়ি গিয়ে অস্ত্র প্রদর্শন করছেন। এ নিয়ে স্থানীয় ৪নং ওয়ার্ডের সাধারণ ভোটারদের মাঝে ভোট কেন্দ্রে যাওয়া নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া বিরাজ করছে ৷বিষয়টি নিয়ে ভোলা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে এবং ঘটনার সূত্র ধরে আমরা পরবর্তী ব্যবস্থা নেব। এছাড়া যে প্রার্থী বা সমর্থকরা সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

 

© All rights reserved © 2020