1. masud.shah@gmail.com : Administrator :
  2. news.bholacrime@gmail.com : News Editor : News Editor
  3. subeditor.bholacrime@gmail.com : Sub Editor : Md. Iqbal Hossain
অকালেই পুলিশের গুলিতে চলে গেলেন জেলা (ভোলা) ছাত্রদলের সভাপতি নুরে আলম - Bhola Crime
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রাজৈরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হলেন নূর জাহান পারুল ভোলায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত,আয়োজনে ভোলা জেলা অনলাইন প্রেসক্লাব ইজি ফ্যাশন মানেই নান্দনিক পাঞ্জাবিতে ঈদ ফ্যাশন চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন তৌহিদ সভাপতি- সম্পাদক সোহাগ- সাংগঠনিক ফারুক পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন ভোলার কৃতি সন্তান রাহাত মাহমুদ অটোরিক্সা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে চরফ্যাশন থানা পুলিশ নৌকাকে বিজয়ের আহবান,নাগরিক সংবর্ধনায় এম.পি শাওন ভোলা-৩ আসনে নুরুন্নবী চৌধুরী শাওনেই আ’লীগের ভরসা সহকারী পুলিশ সুপারের কার্যালয় তজুমদ্দিন সার্কেল ভোলা’র অফিস উদ্বোধন  লালমোহনে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য নুরুননবী সুমনের লিফলেট বিতরন

অকালেই পুলিশের গুলিতে চলে গেলেন জেলা (ভোলা) ছাত্রদলের সভাপতি নুরে আলম

মোঃ মারুফ হাসান/সম্পাদক
  • বুধবার, ৩ আগস্ট, ২০২২

অকালেই চলে গেলেন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নুরে আলম ৷

বিস্তারিত : গত ৩১ শে জুলাই বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গ্যাস, বিদ্যুতসহ নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি এবং বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে সকাল ১১টায় ভোলা জেলা বিএনপি প্রতিবাদ সমাবেশ এবং বিক্ষোভ কর্মসূচির আয়োজন করেছিলো ৷

কর্মসূচী পালনকালে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে সংঘর্ষের সময় পুলিশের গুলিতে আহত জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নুরে আলম আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর একটি হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এর আগে পুলিশের গুলিতে আবদুর রহিম নামে স্বেচ্ছাসেবক দলের এক নেতা নিহত হন। এ নিয়ে ওই সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপির ২  নেতা নিহত হলো।

শহরের কালীনাথ রায়ের বাজার এলাকায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ে সমাবেশ শেষে মিছিল করতে রাস্তায় নামে দলীয় নেতাকর্মীরা।

এসময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে তাদের। সংঘর্ষে পুলিশকে লক্ষ করে ব্যাপক ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়।

পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৩০ রাউন্ড টিয়ারশেল ও ১৬৫ রাউন্ড শটগানের গুলি ছোড়ে। এতে অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হলে তাদের ভোলা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় দক্ষিণ দিঘলদী ইউনিয়নের কোড়ালিয়া গ্রামের হারেছ মাতব্বরের ছেলে স্বেচ্ছাসেবকদল নেতা আব্দুর রহিম মারা যান।

মাথায় গুলিবিদ্ধ গুরুতর আহত ভোলা জেলা ছাত্রদল সভাপতি নুরে আলমকে ভোলা হাসপাতাল থেকে প্রথমে বরিশাল সেবাচিমে পাঠানো হয়।

সেখানকার ডাক্তাররা ব্যর্থ হয়ে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাৎক্ষণিক ঢাকায় পাঠান। তিনদিন হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকার পর আজ ৩রা আগস্ট বুধবার বেলা ৩টার কিছুক্ষণ পর ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন ৷

তার এ মৃত্যুতে ভোলা জেলা বি.এন.পি আগামীকাল ৩রা আগষ্ট রোজ বৃহষ্পতিবার ভোলায় আধাবেলা হরতালের ডাক দিয়েছেন ৷

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020-2022