1. masud.shah@gmail.com : Administrator :
  2. news.bholacrime@gmail.com : News Editor : News Editor
ছাত্রলীগ দিয়েই রাজনৈতিক ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তোফায়েল আহমেদ - Bhola Crime
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাধারন সম্পাদক পদে নির্বাচিত করায় কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন জনাব মঈনুল হোসেন বিপ্লব সঙ্গী কি আপনাকে ‘ধোকা’ দিচ্ছে? বুঝে নিন এই টেকনিকে লালমোহনে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা অনুর্ধ্ব-১৭ “জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট-২০২২” উদ্বোধন করেন নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন এম.পি নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন ছাড়া লালমোহন-তজুমদ্দিনের আওয়ামীলীগ কারো নিকট নিরাপদ নয় (শওকত ওসমান লিখন) ৭৫ দিন পর উদ্ধার হলো ফরহাদ মজুমদারের ছিনতাই হওয়া আইফোন পরকীয়া সম্পর্ক ৫ ধরনের এই বিষয়ে যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা (ভোলা ক্রাইম) ভোলায় ঠিকাদারকে হত্যার উদ্দেশ্যে গলায় ছুরিকাঘাত (ভোলা ক্রাইম) ইসি গঠনে নামের তালিকা সংক্ষিপ্ত করে ২০ জনকে রাখার প্রস্তাবনা টেকনাফে আশ্রয়শিবির থেকে অস্ত্র-গুলিসহ ৩ রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা বাংলাদেশকে শাস্তি নয়, সতর্ক করার জন্য [ভোলা ক্রাইম.কম]

ছাত্রলীগ দিয়েই রাজনৈতিক ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তোফায়েল আহমেদ

নিউজ এডিটর
  • সোমবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২১

আলহাজ্ব তোফায়েল আহমেদ এম.পি ভোলা-১ (সাবেক শিল্প ও বানিজ্য মন্ত্রী ) তার বর্নাট্য রাজনৈতিক ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন ছাত্রলীগের সদস্য হয়ে

১৯৬০ সালে ব্রজমোহন কলেজে ভর্তির পর ছাত্রলীগের সদস্য হয়ে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন।

সেই যে শুরু, ধীরে ধীরে ছাত্রলীগের সদস্য হিসেবে কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে কখনো ক্রীড়া সম্পাদক, হোস্টেল ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবার পর মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি, ’৬৬-’৬৭ সনে ইকবাল হল (বর্তমান শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল) ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি, ’৬৭-’৬৮ সনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন।

৬৯-এর জুনে তোফায়েল আহমেদ ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। ছাত্রলীগের সেই সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু প্রধান অতিথি ছিলেন। তার মাথায় হাত বুলিয়ে দোয়া করে বলেছিলেন, ‘বাংলার মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করে যেও। এই ছাত্রলীগ ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে অনেক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে।
বাংলার মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য তোমাদের নেতৃত্ব দিতে হবে।

বঙ্গবন্ধুর সেই নির্দেশ যথাযথভাবে পালন করে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের দুর্লভ সৌভাগ্যের অধিকারী হয়ে মুজিব বাহিনীর চারটি সেক্টরের একটির আটটি জেলার অধিনায়কের দায়িত্ব পালনের সুযোগ অর্জন করেছিলেন আলহাজ্ব তোফায়েল আহমেদ ।

বঙ্গবন্ধু যখন ৬ দফা দেন তখন তিনি ইকবাল হলের সহ-সভাপতি। ইকবাল হলে বসেই ৬ দফার পক্ষে আমরা আন্দোলনের পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। তার কক্ষ নম্বর ছিল ৩১৩। এই কক্ষে প্রায়শই থাকতেন শ্রদ্ধেয় নেতা শেখ ফজলুল হক মণি, সিরাজুল আলম খান ও আবদুর রাজ্জাক।

৬ দফা দিয়ে বঙ্গবন্ধু আমাদের বলেছিলেন, ‘সাঁকো দিলাম স্বাধিকার থেকে স্বাধীনতায় উন্নীত হওয়ার জন্য। ’অর্থাৎ এই ৬ দফার সিঁড়ি বেয়ে তিনি স্বাধীনতায় পৌঁছাবেন।

এ মহান নেতা শুভ কামনা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ৷

সংগৃহীত

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020